আব্দুল্লাহিল বাকী

Spread the love

বাংলাদেশের অন্যতম সামরিক ব্যক্তিত্ব, এরিয়া কমান্ডার, বগুড়া ও জেনারেল অফিসার কমান্ডিং (জিওসি), বিশিষ্ট উর্দ্ধতন সেনা-কর্মকর্তা ‘মেজর জেনারেল এ.কে.এম আব্দুল্লাহিল বাকী (টনি)’ ১৯৬৩ সালের ৫ জুলাই চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের প্রফেসর পাড়া মহল্লার এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা প্রয়াত আফাজ উদ্দিন আহমেদ ছিলেন নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের একজন স্বনামধন্য অধ্যাপক। তাঁর মাতার নাম এ.কে জাহানারা বেগম। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে তিনি পিতা-মাতার জ্যোষ্ঠ সন্তান।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং হরিমোহন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র আব্দুল্লাহিল বাকী প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পরীক্ষায় বৃত্তি লাভ করেন। ১৯৮০ সালে রাজশাহী ক্যাডেট কলেজ থেকে এস.এস.সি ও ১৯৮২ সালে থেকে এইচ.এস.সি (বিজ্ঞান) পাশ করেন। এস.এস.সি পরীক্ষায় রাজশাহী বোর্ডে তৃতীয় (সম্মিলিত মেধা তালিকায় পঞ্চম) এবং এইচ.এস.সি পরীক্ষায় রাজশাহী বোর্ডে পঞ্চম (সম্মিলিত মেধা তালিকায় ৭ম) স্থান অধিকার করেন তিনি। ১৯৮৪ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বি.এস.সি (প্রথম বিভাগ) এবং পরবর্তীতে ১৯৯৪ সালে বাংলাদেশ ডিফেন্স সার্ভিস স্টাফ কমান্ড কলেজ থেকে তিনি পি.এস.সি ডিগ্রী অর্জন করেন। ।
১৯৮২ সালে তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কমিশনপ্রাপ্ত হন। পরবর্তীতে সেনাবাহিনীর মেজর (১৯৯০), লে.কর্নেল (২০০১), কর্নেল (২০০৭), ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (২০০৯) এবং মেজর জেনারেল (২০১৩) পদমর্যাদায় উন্নীত হন। বর্তমানে এরিয়া কমান্ডার, বগুড়া ও ১১ পদাতিক ডিভিশনের জেনারেল অফিসার কমান্ডিং (জিওসি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বাংলাদেশের অন্যতম সামরিক ব্যক্তিত্ব, বিশিষ্ট উর্দ্ধতন সেনা-কর্মকর্তা ‘মেজর জেনারেল এ.কে.এম আব্দুল্লাহিল বাকী। ১৯৯৯ এবং ২০০৭ সালে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮২ সাল থেকে অদ্যাবধি সাফল্য আর সুনামের সাথে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর গর্বিত সদস্য হিসেবে তিনি বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।
শুধু উচ্চপদস্থ সেনা-কর্মকর্তা নয়, ক্রীড়াবিদ হিসেবেও তাঁর সুনাম রয়েছে। ছোট বেলা থেকেই ভালো ফুটবল খেলতেন। স্কুল জীবনে চাঁপাইনবাবগঞ্জের মিতালী সংঘের ফুটবল খেলোয়ার হিসেবে সুনাম অর্জন করেছিলেন। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ফুটবল দলের অন্যতম সদস্য আব্দুল্লাহিল বাকী বিভিন্ন প্রকার এ্যাথলেটিক্সসহ হকি খেলায় পারদর্শী। ব্যক্তিগতজীবনে এক মেয়ে এবং এক ছেলের জনক আব্দুল্লাহিল বাকী টনির স্ত্রীর নাম বিলকিস বেগম। {অসমাপ্ত…/ বিস্তারিত প্রকাশিতব্য মূল গ্রন্থ- ‘আলোকিত চাঁপাইনবাবগঞ্জ’ (চাঁপাইনবাবগঞ্জের দু’শো বছর ইতিহাসের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সংক্ষিপ্ত জীবনী)}